জনগনের ভালোবাসাই বঙ্গবন্ধুর অর্জন

মানুষের অকৃত্রিম ভালোবাসাই বঙ্গবন্ধুর অর্জন বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনি গুতেরেস। রোববার বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন শেষে তিনি এমন মন্তব্য লেখেন।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনি গুতেরেস জাদুঘর পরিদর্শনের সময় বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিমও উপস্থিত ছিলেন। তবে এবারে জিম ইয়ং কিম অবশ্য কোনো মন্তব্য লেখেননি বইয়ে। এর আগে বাংলাদেশ সফরে এসে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আবেগঘন মন্তব্য লিখতেন তিনি।

রোহিঙ্গা ইস্যুকে কেন্দ্র করে শনিবার দিবাগত রাতে বাংলাদেশ সফরে আসেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনি গুতেরেস ও বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। সোমবার তারা কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যান।

এর আগে রোববার সকালে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন তারা। তারপর বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর ঘুরে দেখেন। বেশ সময় নিয়ে জাদুঘর পরিদর্শন শেষে মন্তব্য বইয়ে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনি গুতেরেস লিখেন ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু জাদুঘর পরিদর্শন করতে এসে অভিবাদন জ্ঞাপন করছি এবং নিজেকে ধন্য মনে করছি।’

তিনি আরও লেখেন, ‘বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের বড় অর্জন হচ্ছে মানুষের ভালোবাসা এবং শেষ দিন পর্যন্ত জাতিসংঘের অকুণ্ঠ সমর্থন পাওয়া।’

বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের কিউরেটর নজরুল ইসলাম খান এ প্রসঙ্গে বলেন, এই জাদুঘরটি আর দশটি জাদুঘরের সঙ্গে তুলনা করা যায় না। এখানে জাতির প্রতিষ্ঠাতার অর্জন রয়েছে। আবার ইতিহাসের জঘন্যতম হত্যাকাণ্ডের নিদর্শন রয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে এবং বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিরোধীপক্ষ বিশ্বে নানা অপপ্রচার চালিয়ে আসছিল। কিন্তু বিশ্ব নেতারে এই জাদুঘরে এসে বঙ্গবন্ধুর কর্মের প্রতি মাথানত করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

কিউরেটর বলেন, বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট এর আগে বাংলাদেশ সফরে এসে আবেগঘন মন্তব্য লিখে যান।

মতামত দিন