র‌্যাব-পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জেনেভা ক্যাম্পের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী নাদিমসহ র‌্যাবের (র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুইজন নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার ভোরে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ও মিরপুরের বেড়িবাঁধ এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পৃথক এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার উপপরিচালক মেজর হুসাইন জানান, নারায়ণঞ্জের রুপগঞ্জ এলাকায় একদল ব্যবসায়ী মাদক পাচার করছে- এমন সংবাদে র‌্যাব সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালালে মাদক ব্যবসায়ী জেনেভা ক্যাম্পের নাদিম ওরফে পঁচিশ মারা যান।

এদিকে আজ ভোরে মিরপুরের বেড়িবাধ এলাকায় র‌্যাবের সঙ্গে পৃথক বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী ইব্রাহিম নিহত হন। এই দুই বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এছাড়া রংপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বেলাল হোসেন (৪০) নামে এক আসামি নিহত হয়েছেন। ৯ জুলাই দিবাগত রাতে নগরীর হাজীরহাট এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) সাইফুর রহমান সাইফ জানান, হাজীরহাট এলাকায় একদল ডাকাত অবস্থান নিয়ে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন গোপন খবরের ভিত্তিতে পুলিশের একটি বিশেষ দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে ডাকাতরা। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় বেলাল হোসেন ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন। এ ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন।

পুলিশের দাবি, নিহত বেলাল আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার। তার বিরুদ্ধে রংপুর কোতোয়ালিসহ বিভিন্ন থানায় ডাকাতি, হত্যা ও ছিনতাইসহ ২০টি মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল ও দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মতামত দিন