২০০১ সালের মতো নির্বাচন আর হবে না: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি যতই স্বপ্ন দেখুক, ২০০১ সালের মত নির্বাচন আর হবে না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামের পটিয়া বাইপাস সড়কের উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

পটিয়া বাইপাস সড়কের কাজ ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে শেষ হবে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, শাহ আমানত সেতুর দুই পাশে নির্মাণাধীন একটি ছয়লেন ও আরেকটি চারলেনের সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলছে। এটা কুয়েত ফান্ডের প্রকল্প। চট্টগ্রামে এটিই ছয়লেনের প্রথম সড়ক। এ ছাড়া চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক চারলেন করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এ প্রকল্পের ডিপিপি পরিকল্পনা কমিশনে জমা আছে। আমরা বিদেশি সংস্থা খুঁজছি। প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধে জাইকা রাজি হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে এ অঞ্চলের যাতায়াত ব্যবস্থা আরও এগিয়ে যাবে।

আগামী জাতীয় নির্বাচনে সব দলকে আনতে সরকারের কোনো উদ্যোগ আছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। নির্বাচনের উদ্যোগ নেবে নির্বাচন কমিশন। তফসিল ঘোষণার পর লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করাসহ সব নির্বাচনী কাজ করবে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন পরিচালনা নিয়ে সরকারের করণীয় কিছু নেই। নির্বাচন কমিশন কোনো সহযোগিতা চাইলে সরকার শুধু সেই সহযোগিতা দেবে।

নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগ-বিএনপির ভারত সফর প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন নিয়ে আমরা ভারত সফর করিনি। আমার নেতৃত্বে যে টিম ভারতে গিয়েছিল, আমরা বিজেপির সেক্রেটারি জেনারেল রামমাধব সাহেবের আমন্ত্রণে গিয়েছিলাম। বিএনপি তো কোনো আমন্ত্রণে যায়নি। তারা নিজেরা নিজেরা গেছে।

তিনি বলেন, ভারতে গিয়ে আমরা পার্টি টু পার্টি, পিপল টু পিপল কন্ট্যাক্টের কথা বলেছি। আমাদের সঙ্গে মোদি সাহেবেরও দেখা হয়েছে। সেখানেও আমরা নির্বাচন নিয়ে কোনো কথা বলিনি। আমরা আমাদের ইন্টারেস্ট নিয়ে কথা বলেছি। রোহিঙ্গাদের নিয়ে কথা বলেছি। তিস্তা নিয়ে কথা বলেছি।

উল্লেখ্য, ২০০১ সালে অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে দুই-তৃতীয়াংশ আসনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করেছিল বিএনপি-জামায়াতের নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকার। পরাজয়ের পর সেই নির্বাচনে ‘স্থূল কারচুপির’ অভিযোগ এনেছিল আওয়ামী লীগ।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার দুই মেয়াদে সরকারে রয়েছে। চলতি বছরের ডিসেম্বরে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

মন্ত্রী জানান, ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে পটিয়া বাইপাস সড়কের কাজ শেষ হবে। ইতিমধ্যে বেশির ভাগ কাজ শেষের দিকে। শাহ আমানত সেতুর দুই পাশে নির্মাণাধীন একটি ছয় লেন ও আরেকটি চার লেনের সড়কের কাজের অগ্রগতি প্রসঙ্গেও তিনি কথা বলেন। চট্টগ্রামে ছয় লেনের সড়ক এটি প্রথম। এটা করা হচ্ছে কুয়েত ফান্ডের টাকায়।

৫০ হাজার মানুষের মেজবান অংশ নিলেন ওবায়দুল কাদের

বাইপাস সড়ক পরিদর্শন শেষে দুপুরে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের পটিয়ার শোভনদন্ডি ইউনিয়নের রশিদাবাদ গ্রামে স্থানীয় সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরীর মায়ের কুলখানি উপলক্ষে আয়োজিত মেজবানে যোগ দেন। এই মেজবানে প্রায় ৫০ হাজার মানুষের খাওয়ার আয়োজন করা হয়।

সংসদ সদস্যের নিজ বাড়ি ছাড়া স্থানীয় কলেজ ও মাদ্রাসা মাঠে এই মেজবান অনুষ্ঠিত হয়। এতে পটিয়া উপজেলাসহ বিভিন্ন এলাকার লোকজন স্বতঃস্ফূর্তভাবে যোগ দেন। মেজবান উপলক্ষে ৩০-৩৫টি গরু-মহিষ জবাই করা হয় বলে স্থানীয় সূত্র জানায়।

ওবায়দুল কাদের ছাড়াও এই মেজবানে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা যোগ দেন।

মতামত দিন